Logo Design Logo Design Logo Design

গাজীপুর সদর দলিল লিখক ও ভেন্ডার কল্যাণ সমিতির এডহক কমিটি ভেঙ্গে প্রশাসক নিয়োগ

2 minutes

  • Save

জাহিদ হাসান জিহাদঃ

গাজীপুর সদর দলিল লিখক ও ভেন্ডার কল্যান সমিতির নির্বাচনের পক্ষে যাওয়া সদস্যদের অভিযোগের ভিত্তিতে বর্তমান ৩ সদস্য বিশিষ্ট এডহক কমিটি ভেঙ্গে দিয়ে প্রশাসক নিয়োগ দিয়েছে সমাজসেবা কার্যালয় তারই পরিপ্রেক্ষিতিতে উক্ত গাজীপুর সদর দলিল লিখক ও ভেন্ডার কল্যান সমিতির সকল কার্যক্রম জেলা সমাজসেবা কার্যালয় নিয়ন্ত্রন করবে বলে গত ২৩/০১/২০২০ তারিখে একটি চিঠি প্রেরণ করেছে গাজীপুর সদর দলিল লিখক ও ভেন্ডার কল্যান সমিতি বরাবর। গাজীপুর সদর দলিল লিখক ও ভেন্ডার কল্যান সমিতির সদস্যরা গত ২৩/০১/২০২০ তারিখে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব জাহিদ আহসান রাসেল এম.পি, গাজীপুর সিটি কর্পোরশেনের মাননীয় মেয়র এড. জাহাঙ্গীর আলম, গাজীপুর জেলা প্রশাসক, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার, গাজীপুর জেলা রেজিষ্টার, গাজীপুর সমাজকল্যান অধিদপ্তর ও সদর মেট্রোথানা বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করে। উক্ত অভিযোগে বলা হয়, গাজীপুর সদর দলিল লিখক ও ভেন্ডার কল্যান সমিতি একটি পেশাজীবী সংগঠন, বিগত দিনে উক্ত সংগঠনের দুই বৎসর অন্তরে সাধারণ নির্বাচনের মাধ্যমে কার্যনির্বাহী কমিটির নির্বাচিত সদস্যদের নিয়ে সমিতিটি পরিচালিত হয়ে আসতেছে। কমিটির মেয়াদান্তে পরবর্তী মেয়াদের কমিটি নির্বাচনের জন্য এডহক কমিটি গঠন করা হয়। পরবর্তী সকল এডহক কমিটি সমিতির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী নির্বাচনের মাধ্যমে নির্বাচিত কমিটির নিকট শান্তিপূর্ণ ক্ষমতা হস্তান্তর করে কিন্তু পরিতাপের বিষয়, সর্বশেষ গঠিত এডহক কমিটির মেয়াদ প্রায় শেষের দিকে এরই মধ্যে তারা নির্বাচন ত দূরের কথা, নির্বাচন করার ব্যাপারে কোনো প্রকার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ না করে তার পরিবর্তে গরিমষি করিয়া কালক্ষেপন করিতেছে বলে একটি লিখিত অভিযোগ করে। উক্ত অভিযোগের ভিত্তিতে গাজীপুর জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক এস.এম.আনোয়ারুল করিম স্বাক্ষরিত গত ২৩/০১/২০২০ তারিখ গাজীপুর সদর দলিল লিখক ও ভেন্ডার কল্যান সমিতির কার্যালয়, মহা পরিচালক সমাজসেবা অধিদপ্তর ঢাকা, পরিচালক (কার্যক্রম) সমাজসেবা অধিদপ্তর, ঢাকা গাজীপুর জেলা প্রশাসক, উপ-পরিচালক (নিবন্ধন) সমাজসেবা অধিদপ্তর, ঢাকা বরাবর একটি চিঠি দাখিল করেছে। উক্ত চিঠিতে বলা হয়েছে, নির্বাচনের পক্ষে ২৯৩ জনের স্বাক্ষরিত একটি তালিকা তাদের বরাবর প্রেরণ করা হয়। উক্ত কাগজপত্র পর্যালোচনায় দেখা যায়, গঠনতন্ত্রের ১০ ধারা মোতাবেক দুই বঃসর অন্তর অন্তর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবার কথা থাকলেও তা করা হয়নি। গত ২৮/১২/২০১৭ তারিখে ৩ সদস্য বিশিষ্ট এডহক কমিটি গঠন করা হয়। উক্ত কমিটির মেয়াদ গঠনতন্ত্র অনুযায়ী ৬০ দিন। মেয়াদ উর্ত্তীণ হবার পরও দীর্ঘদিন পর্যন্ত নির্বাচনের বিষয়ে গঠনতন্ত্র মোতাবেক কোন পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় গঠিত এডহক কমিটি ভেঙ্গে দিয়ে জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের সহাকারী পরিচালককে নিয়োগ দিয়েছে। এদিকে একটি সূত্রে জানা গেছে, উক্ত সমিতির নির্বাচন নিয়ে বর্তমান বিলুপ্ত এডহক কমিটি নির্বাচন না দিয়ে একটি পকেট কমিটি করার পায়তারা করছে দীর্ঘদিন যাবৎ এবং পকেট কমিটি করার জন্য মহানগর পর্যায়ের বিভিন্ন রাজনৈতিক মহলে দৌড়ঝাপ শুরু করছে বলে জানা গেছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জনৈক সদস্য এই প্রতিনিধিকে জানান, ৩৫০ জন সদস্যের ভিতরে ২৯৩ জন সদস্য নির্বাচন চায়, উক্ত নির্বাচনের পক্ষে একটি গণস্বাক্ষর বিভিন্ন কার্যালয়ে আমরা প্রেরণ করেছি শুধু মাত্র একটি সুষ্ঠ নির্বাচনের জন্য। যদি আমাদের এই দাবী না মানা হয় তাহলে আমরাও কোনো প্রকার পকেট কমিটি মানব না। এদিকে নির্বাচনকে সামনে রেখে উক্ত নির্বাচনী এলাকায় দিনে দিনে বাড়ছে উত্তপ্ততা। যে কোনো সময় ঘটতে পারে রক্ষক্ষয়ি সংঘর্ষ। বিষয়টির প্রতি গাজীপুর প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে গাজীপুর সদর দলিল লিখক ও ভেন্ডার কল্যান সমিতির সদস্যবৃন্দরা।

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap