চাকরি দেয়ার কথা বলে ধর্ষণ:নীলফামারীতে ধর্ষক গ্রেপ্তার

মহিনুল ইসলাম সুজন, রিপোর্টার নীলফামারী

  • Save

রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার এক নারীকে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে নীলফামারীতে এনে ধর্ষনের অভিযোগে ধর্ষক নুর আমিনকে (৪৫) নীলফামারী থানা পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। গ্রেপ্তারকৃত ধর্ষক রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার মায়াগাছ গ্রামের মৃত ফজলে রহমানের ছেলে।বৃহস্পতিবার(৮ অক্টোবর) দুপুরে পচিশ বছরের ওই ধর্ষিতা নারী গণমাধ্যমকর্মীদের জানান, তার বাড়ি রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার লালদিঘি উত্তরপাড়া গ্রামে। তার একটি চাকুরীর জরুরী প্রয়োজন হওয়ায় তিনি দুর সর্ম্পকের মামা নুর আমিনকে জানায়। সেই মামা তাকে নীলফামারী উত্তরা ইপিজেডের একটি ফ্যাক্টরীতে চাকরি নিয়ে দিবে জানিয়ে গত ২৪ সেপ্টেম্বর তাকে নীলফামারী নিয়ে আসে। কিন্তু চাকরির কোন ব্যবস্থা না হওয়ায় ওই রাতে নীলফামারী হাজীগঞ্জ এলাকায় তার আত্মীয়ের বাড়িতে নিয়ে গিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। ঘটনাটি প্রকাশ না করার জন্য তাকে হুমকী দিয়ে বলে ধর্ষনের ঘটনা প্রকাশ করলে চাকরি হবেনা। চাকরির আশায় তিনি চুপ করে থাকতে বাধ্য হন। এরপর গত ৬ অক্টোবর পুনরায় তাকে নিয়ে নীলফামারী আসে নুর আমিন। কিন্তু সেদিনও কোন চাকরির ব্যবস্থা না হলে সে পুনরায় রাত কাটানোর প্রস্তাব দেয়। আসামী নুর আমিনের মতলব বুঝতে পেরে কৌশলে ওই নারী গত ৬ অক্টোবর মঙ্গলবার দুপুরে নীলফামারী থানায় এসে ঘটনাটি খুলে বলে মামলা দায়ের করেন।

Digital Marketing
  • Save


নীলফামারী থানার ওসি (তদন্ত) মাহমুদ-উন নবী জানান, এই মামলা পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মোখলেছুর রহমান (বিপিএম, পিপিএম)স্যারের দিক নির্দেশনা পেয়ে আরেকটি কৌশল প্রয়োগ করে অভিযান পরিচালনা করে মামলা রুজুর ৬ ঘণ্টার মধ্যে আসামি নুরুল আমিনকে নীলফামারীর কাজিরহাট এলাকা হতে গ্রেপ্তার করা হয়।প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামী ধর্ষনের কথা স্বীকার করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap