চুয়াডাঙ্গা বিজিবির মাদক ও চোরাচালান বিরোধী অভিযান

আমাদের সংবাদ বিশেষ প্রতিনিধি :

  • Save

অদ্য ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখ রাত আনুমানিক ০৪টার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চুয়াডাঙ্গা ব্যাটালিয়ন (৬বিজিবি) এর বিশেষ টহল কমান্ডার নায়েক মোঃ মনির হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা থানার অন্তর্গত জাহাজপোতা ব্রীজ নামক স্থান হতে ৭২ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিল ও ৬৮০পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট আটক করতে সক্ষম হয়, যার আনুমানিক মূল্য ২,৩২,৮০০/- (দুই লক্ষ বত্রিশ হাজার আটশত) টাকা মাত্র। আটককৃত ফেন্সিডিল ও ইয়াবা ট্যাবলেট মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরে জমা করা হয়েছে।

  • Save

অদ্য ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখ সকাল আনুমানিক ১০টার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চুয়াডাঙ্গা ব্যাটালিয়ন (৬বিজিবি) এর বিশেষ টহল কমান্ডার নায়েক মোঃ মনির হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা থানার অন্তর্গত লোকনাথপুর পেট্রোল পাম্পের সামনে হতে ৩৫টি ভারতীয় শাল আটক করতে সক্ষম হয়, যার আনুমানিক মূল্য ৮৭,৫০০/- (সাতাশি হাজার পাচশত) টাকা মাত্র। আটককৃত শাল দর্শনা কাষ্টমস অফিসে জমা করা হয়েছে।

  • Save

অদ্য ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখ সকাল আনুমানিক ১১টার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চুয়াডাঙ্গা ব্যাটালিয়ন (৬বিজিবি) এর বিশেষ টহল কমান্ডার নায়েক মোঃ মনির হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা থানার অন্তর্গত দর্শনা পুরাতন বাজার হতে ১৮টি ভারতীয় শাড়ী, ০২টি প্যান্টপিচ ও ৩২টি কসমেটিকস সামগ্রী আটক করতে সক্ষম হয়, যার আনুমানিক মূল্য ১,১৪,০০০/- (এক লক্ষ চৌদ্দ হাজার) টাকা মাত্র। আটককৃত মালামাল

দর্শনা কাষ্টমস অফিসে জমা করা হয়েছে।

  • Save

অদ্য ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখ বিকাল আনুমানিক ০৫টার সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চুয়াডাঙ্গা ব্যাটালিয়ন (৬বিজিবি) এর মুন্সিপুর বিওপির টহল কমান্ডার নায়েক মোঃ আমিনুল ইসলাম সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে অভিযান চালিয়ে চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা থানার অন্তর্গত মুন্সিপুর গ্রামের মুন্সিপুর মাঝপাড়া নামক স্থান হতে ০১ জন আসামীসহ (মোঃ ছামাদুল ইসলাম(৩৫), পিতা-নুর মোহাম্মদ, গ্রাম-হেমায়েতপুর, থানা-দামুড়হুদা, জেলা-চুয়াডাঙ্গা) ০২ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিল আটক করতে সক্ষম হয়, যার আনুমানিক মূল্য ৮০০/- (আটশত) টাকা মাত্র। আটককৃত ফেন্সিডিলসহ আসামীকে দামুড়হুদা থানায় সোপর্দ করতঃ এব্যাপারে আরও একজনকে পলাতক আসামী করে (মোঃ ইমরান(৩০), পিতা-মোস্তফা, গ্রাম-হেমায়েতপুর, থানা-দামুড়হুদা, জেলা-চুয়াডাঙ্গা) নায়েক মোঃ আমিনুল ইসলাম বাদী হয়ে বর্ণিত আসামীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

উপরের উল্লেখিত আটককৃত ৬৮০পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট, ৭২ বোতল ফেন্সিডিল, ১৮টি শাড়ী, ০২টি প্যান্টপিচ ও ৩২টি কসমেটিকস ও ৩৫টি শাল এর আনুমানিক মুল্য ৪,৩৫,১০০/- (চার লক্ষ পয়ত্রিশ হাজার একশত) টাকা মাত্র।

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap