ঝালকাঠিতে হোম কোয়ারেন্টোইনে ৫৮ জন, শতর্ক বার্তা প্রচার, লঞ্চ চলাচল বন্ধ।

< 1 min read

মোঃ আল-আমিন, ঝালকাঠিঃ-

  • Save

ঝালকাঠি জেলায় বিদেশ থেকে আসা ৫৮ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। এদের মধ্যে ঝালকাঠি সদরে ২৭জন, নলছিটিতে ১১জন, রাজাপুরে ১৭জন ও কঁাঠালিয়ায় ৩জন। তবে এরা কেউ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত নয়। বিদেশ থেকে আসার কারণে নিজ বাসায় তাদের ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে রেখেছে স্বাস্’্য বিভাগ। এরা চীন, ইতালি, নেদারল্যান্ড, স্পেন, সিংগাপুর, সৌদি, ভারত, কুয়েত, লেবানন, আরব-আমিরাত, বাহরাইন, জর্ডান, মালয়শিয়ান প্রবাসী। এদিকে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে ১৪ শয্যা বিশিষ্ট ৪টি করোনা ইউনিট স্’াপন করা হয়েছে। তিনটি উপজেলা স্বাস্’্য কমপ্লেক্সে একটি করে করোনা ইউনিট করেছে স্বাস্’্য বিভাগ। তথ্য অধিদপ্তরের সহযোগিতায় জেলা জুড়ে শতর্কতামূলক বার্তা প্রচার করে মাইকিং করেছে জেলা প্রশাসন। বন্ধ রাখা হয়েছে ঢাকা-ঝালকাঠি রুটের লঞ্চ চলাচল। অপরদিকে ঝালকাঠিতে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতার জন্য প্রচার-প্রচারণা শুরু করেছে জেলা পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে শহরের বিভিন্ন স্’ানে দঁাড়িয়ে পথচারীদের হাতে ফিললেট তুলে দেন পুলিশ সুপার ফাতিহা ইয়াসমিন। মাস্ক ও গে­াবস ব্যবহার, গণজমায়েত না করা, পার্ক ও দোকানে আড্ডা না দেওয়ার জন্য পুলিশ সুপার পথচারীদের অনুরোধ করেন। জরুরী প্রয়োজন ছাড়া এক স্’ানে অনেক মানুষের জমায়েত না করার পরামর্শ দেন তিনি। পাশাপাশি করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সচেতন হওয়ারও অনুরোধ করেন তিনি। জনসচেতনতামূলক এ কার্যক্রমে অংশ নেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. হাবীবুল্লাহ, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খলিলুর রহমান, গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক (ওসি) ইকবাল বাহার খান উপস্’িত ছিলেন। এছাড়াও করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে ঝালকাঠি পৌরসভার উদ্যোগে লিফলেট বিতরণ করা হয়। পৌর মেয়র লিয়াকত আলী তালুকদার শহরের বিভিন্ন স্’ানে পথচারীদের হাতে লিফলেট তুলে দেন। এসময় পৌর কাউন্সিলররা উপস্’িত ছিলেন।

মোঃ আল-আমিন

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap