তিতুদহ ইউপি চেয়ারম্যান আকতার ও তাঁর পরিষদের দুর্নীতির আংশিক নমুনা

< 1 min read

  • Save

বিশেষ প্রতিনিধি,ঢাকা অফিসঃ

তিতুদহ ইউপি চেয়ারম্যান আকতার’র নামে দীর্ঘদিন ধরে রয়েছে ব্যাপক অভিযোগ। তার শিক্ষাগুরুকে ল্যাংমেরে সামান্য কর্মী ও চামচা থেকে তিনি মামলা জনিত কারণে রাতারাতি বনে যান ইউপি চেয়ারম্যান। জেলার তিনটি অন্যতম প্রধান দূর্নীতিগ্রস্থ পরিষদের মধ্যে বর্তমানে তিতুদহ ইউপি দুর্নীতির স্বর্গরাজ্যে পরিণতহয়েছে।
তাঁর নামে রয়েছে অসংখ্য টাকা আত্মসাৎ ও এ্যানিমি প্রপার্টি দখলের অভিযোগ।
খোদ তার বসত ভিটাটাও হিন্দু সম্পত্তি জোর পূর্বক দখল করে নিয়ে বানিয়েছেন আলিশান বিল্ডিং।ঐ এনিমি প্রপার্টি নিজ সম্পদ হিসাবে জাল দলিলও বগলদাবা করে নিয়েছেন বলে এলাকায় রয়েছে ব্যাপক জনশ্রুতি।
খাড়াথোদা বাজারে বানিয়েছেন দু কোটি টাকা থরচ করে বিশাল আড়ৎ , গদিঘর ,মিনি কোল্ডস্টোর।
এছাড়া আগামীতে যারা তার প্রতিদ্বন্দ্বী হিসবে নির্বাচন করতে ইচ্ছুক ও এবং গ্রামে গঞ্জে মৌখিক প্রচারণা শুরু করেছের , তাদেরকেও মামলা মোকদ্দমা, প্রাণনাশের হুমকীসহ এলাকা ও দুনিয়া ছাড়া করার যাবতীয় নীল নকশাও ইতোমধ্যেেই অঙ্কণ করে ফেলেছেন বলে জানিয়েছন তার একজন ঘনিষ্ঠ সহচর।
বেশ ক বছর পূর্বে তাঁর এক কথিত রক্ষিতা ও প্রেমিকা যার বাংলা ছবির নায়িকার নামে নাম , তার যে রাতে অন্য গ্রামে অন্য এক ব্যক্তির সাথে বিয়ে হয়ে গেলে সে সংবাদ -পেয়ে চেয়ারম্যান টানা ৫ ঘন্টা অজ্ঞান হয়ে যান বলেও এলাকার অধিকাংশ মানুষই জানেন। বর্তমানে তিনি জেনে গেছেন আগামীতে স্বয়ং দেবতারাও তাকে আর জেতাতে পারবেন না।

তাই তিনি জন্মসনদ. প্রত্যয়নপত্র, নাগরিকত্বসনদসহ সব কিছু প্রদানের ক্ষেত্রে সচিবের মাধ্যমে মাসে মাসে লুটে নিচ্ছেন লক্ষ লক্ষ টাকা।

এ বিষয়ে আরো জানতে আমাদের সাথেই থাকুন …..বিস্তারিত কম্পোজ চলছে।……………………………………

(শ্রেণীবদ্ধ বিজ্ঞাপন ও সংবাদ সংক্্রান্ত বিষয়ে যোগাযোগ করুন 01713 17 60 59 )

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap