নওগাঁয় আরও ৯ জন করোনাযুদ্ধে জয়ী

2 minutes

প্রতিনিধি শেখ নাফিজ (তপন)

  • Save

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত প্রথম নার্স দীপা আক্তারসহ নওগাঁয় নয়জন করোনাভাইরাসের সঙ্গে যুদ্ধ করে সুস্থ হয়েছেন। সোমবার রাত ৭টার দিকে জেলা ডেপুটি সিভিল সার্জন মঞ্জুর এ মোর্শেদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

করোনাজয়ীরা হলেন- রানীনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নার্স দীপা আক্তার, মোসলেমা ও তুহিন রানা, আত্রাই উপজেলার আনোয়ারা বিবি, সাদিক ও সামাদ, মহাদেবপুর উপজেলার আশা ও সুজিত এবং মান্দা উপজেলার সাব্বির আহমেদ। এ সময় করোনাজয়ীদের প্রত্যেক উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে ফুলের তোড়া উপহার দিয়ে বিদায় জানানো হয়।

করোনাজয়ী মান্দা উপজেলার দোসতী গ্রামের যুবক সাব্বির আহমেদ বলেন, মান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ল্যাব সহকারী আমি। অন্যদের সঙ্গে ২৩ এপ্রিল আমার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এরপর গত ২৯ এপ্রিল করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়। অথচ কোনো ধরনের উপসর্গ আমার শরীরে ছিল না।

নওগাঁর ডেপুটি সিভিল সার্জন মঞ্জুর এ মোর্শেদ বলেন, করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিদের হোম আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা দেয়া হয়েছিল। নির্দিষ্ট সময় পর তাদের নমুনা পরীক্ষায় নেগেটিভ আসে। এখন তারা সুস্থ। তাদের ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে। জেলায় মোট ১০ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়েছেন।

উল্লেখ্য, জেলায় মোট ৭০ জন ব্যক্তির করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়। এর মধ্যে ১০ জন করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন।

তিনি বলেন, করোনা পজিটিভ আসার পর আমাকে মান্দা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে করোনা আইসোলেশনে রাখা হয়। মোবাইল ফোনে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে থেকে নিয়মিত যোগাযোগ করা হতো এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে নির্দেশনা দেয়া হতো। সেখানে ফলসহ বিভিন্ন খাবার সরবরাহ করা হতো। প্রতিদিন আদা, লেবু, কালোজিরা, সরিষার তেল, কাঁচা হলুদ ও মধু পানিতে গরম করে ৫-৭ মিনিট করে দিনে ৫-৬ বার ভাপ নিতাম। সঙ্গে মেডিসিন চলত। এভাবে এক সপ্তাহ ধরে নিয়ম পালন করি। ৩ মে আবারও নমুনা সংগ্রহ করা হয়। ৭ মে রিপোর্ট আসে নেগেটিভ। ৮ মে আবারও নমুনা সংগ্রহ করা হলে সোমবার (১১ মে) রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। আমি এখন সুস্থ।

আত্রাই উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা রোকসানা হ্যাপি বলেন, মনোবল ঠিক রাখতে করোনা আক্রান্তদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখা হয়। তাদেরকে সার্বক্ষণিক স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে দিক-নির্দেশনা দেয়া হয়। নিজ নিজ বাড়ি থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে তারা সুস্থ হয়েছেন। সর্বশেষ তাদের নমুনা নিয়ে পরীক্ষার জন্য পাঠালে রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। এখন তারা সুস্থ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap