নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলা নির্বাচনে মামি-ভাগিনা-ভাগ্নির লড়াই!!

2 minutes

নিজস্ব প্রতিনিধি, নোয়াখালীঃ

আগামী ১৪ই অক্টোবর নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচন নৌকা ও বিদ্রোহী প্রার্থী মামি-ভাগিনা-ভাগ্নির লড়াই জমে উঠেছে। চলছে গণসংযোগ ও প্রচার-প্রচারণা। আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান শিউলি একরাম অপরদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক পৌরসভা মেয়র ও জেলা পরিষদ সদস্য এবং জেলা আওয়ামী লীগ নেতা আলাবক্স তাহের টিটু। জয়ের ব্যাপারে তারা আশাবাদী। নৌকা মার্কার চেয়ারম্যান প্রার্থী কামরুন নাহার শিউলী ও আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী প্রার্থী আলাবক্স তাহের টিটু এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী খাদেমা আক্তার তারা উভয়ে নৌকার প্রার্থীর ভাগিনা-ভাগ্নি। তবে আলাবক্স তাহের টিটুর দাবি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে জনগণ তাকেই জয়ী করবে। এখন সে ফলাফলের জন্য অপেক্ষা করতে হবে ১৪ই অক্টোবর পর্যন্ত। সেদিন ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হলে বিকেলেই কে শেষ হাসি হাসবে সেটাই দেখার অপেক্ষায় ভোটাররা। রাজনীতিতে আমার মামি কামরুন্নাহার শিউলী ও মামা একরামুল করিম চৌধুরীকে এনে গাছে উঠানো শিখিয়েছি কিন্তু নামানো শিখাইনি।

  • Save

আমার নেতা ওবায়দুল কাদেরের সংসদীয় আসনে সদরের এমপি’র পাওয়ার না দেখালে বিজয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী। ভোটাররা একাট্টা হয়ে গেছে আনারস প্রার্থীর পক্ষে। এ নির্বাচনে উপজেলা চেয়ারম্যান পদে মাঠে লড়ছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত কামরুন্নাহার শিউলী (নৌকা), স্বতন্ত্র প্রার্থী খাদেমা আক্তার (দোয়াত কলম), আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী প্রার্থী আলাবক্স টিটু (আনারস)। উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে মাঠে লড়ছেন মো. নজরুল ইসলাম (চশমা), মো. নুরুল আলম ভুঁইয়া (টিউবওয়েল) ও মো. মাঞ্জুর হোসেন (তালা)। উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) পদে লড়ছেন,ফরিদা ইয়াছমিন (কলস), বিবি জয়নব (হাঁস) ও শাহানা আক্তার (পদ্মফুল) মাঠ চষে ভোটার নিকট ভোট চাচ্ছেন। পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে স্থগিত হওয়া নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচন ব্যাপক হানাহানি ও ঝুঁকির আশঙ্কায় আগামী ১৪ই অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে। এ নির্বাচনকে সামনে রেখে কবিরহাটে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী কামরুন্নাহার শিউলীর নৌকা প্রতীকের পক্ষে একাট্টা হয়েছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা কর্মীরা। চলতি বছরের ৩০শে মার্চ এ উপজেলার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও আওয়ামী লীগ প্রার্থী কামরুন্নাহার শিউলী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আলাবক্স টিটুর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে ২৮শে মার্চ সন্ধ্যায় কবিরহাট বাজারে গোলাগুলির ঘটনায় নির্বাচনী পরিবেশ বিনষ্ট হওয়ায় ২৯শে মার্চ বিকাল ৩টায় নির্বাচন কমিশন থেকে নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করা হয়। সাম্প্রতিক জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক একরামুল করিম চৌধুরী এমপির ডাকে সাড়া দিয়ে নৌকা মার্কার প্রার্থী এমপির স্ত্রী কামরুন্নাহার শিউলীর পক্ষে মাঠে শক্ত অবস্থান নিয়েছে উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।

  • Save

এ উপজেলায় ৭৪ হাজার ২৭১ জন পুরুষ এবং ৭১ হাজার ৯৬০ জন মহিলা ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করার কথা রয়েছে। কামরুন্নাহার শিউলী কবিরহাট উপজেলা পরিষদে দুইবারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান। তিনি এবারও আওয়ামী লীগ থেকে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন। কামরুন্নাহর শিউলী বলেন, দীর্ঘদিন উপজেলা পরিষদের দায়িত্বে থাকার কারণে জনগণের জন্য কাজ করার সুযোগ হয়েছে। এলাকার দৃশ্যমান উন্নয়ন হয়েছে। দলীয় নেতাকর্মীদের মাঝেও ঐক্য তৈরি করা সম্ভব হয়েছে। জনগণের পাশে থাকার কারণে এবং বর্তমান সরকার উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষা করায় এবারও জনগণ নৌকার পক্ষেই আছেন। দলীয় নেতাকর্মী ও জনগণের উচ্ছ্বাসই অগ্রিম বলে দিচ্ছে আবারো নৌকা মার্কার জয় হবেই।অপরদিকে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আলাবক্স তাহের টিটু বলেন,সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে আমি অবশ্যই বিপুল ভোটে নির্বাচিত হবো। অন্যদিকে স্বতন্ত্রপ্রার্থী ভাগ্নি খাদেমা আক্তার বলেন, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ভোট জনগণ দিতে পারলে আমি বিজয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী। নোয়াখালী জেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং অফিসার মোহাম্মদ রবিউল আলম জানান, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন সম্পন্ন করতে সকল ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। ভোটাররা সুন্দরভাবে তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে পারবেন বলেও জানান তিনি। এ নিয়ে আগামী ১৪ই অক্টোবর ভোটকে ঘিরে পুনরায় বহিরাগতদের অস্ত্রের ঝনঝনানি ও ফের ভোটারদের গুলিবিদ্ধের আশঙ্কায় চাপা উত্তেজনা চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap