Fiver bussniess

ভিক্ষাবৃত্তিই প্রতিবন্ধী আলীর একমাএ অবলম্বন

এ এইচ মাহমুদ – বরিশাল ব‍্যুরো:

  • Save

মো: আলী হোসেনের জীবন অতিবাহিত হচ্ছে ভিক্ষা করেই। এছাড়া অন্য কোন আয়ের উৎসও নেই তার, কারন সে অতিদরিদ্র। বিশ বছর আগে আলী হোসেনের বাবা মারা যায়। ঘরের একমাএ ছেলে আলী সংসারের বড় সন্তান। ছোট তিনটি বোন আছে তার, আছেন জন্মদাত্রী মা জননী। বাবার মৃত্যুর পর কিছুদিন আলীর মা প্রতিবেশিদের ঘরে ঘরে ঝি-এর কাজ করতো। কিন্তু তাতে তো চার সদস‍্যর সংসার চলেনা। এসব দেখে আলীর তো আর মন মানেনা। আলী মনে মনে সিদ্ধান্ত নেয় তার এই অচল দুটি পা লাঠিতে ভর করেই ভিক্ষা করবে, যেমন সিদ্ধান্ত তেমন কাজ। দীর্ঘ প্রায় সতের বছর যাবৎ আলী ভিক্ষা করছে বরিশালের মেহেন্দিগন্জ উপজেলার পাতারহাট বন্দরে। ভিক্ষাবৃত্তি করেই আলী ইতিমধ্যে তার তিন বোনের বিয়ে দিয়েছেন। আলীর এলাকায় বেশকিছু বিত্তবানদের বসবাস হলেও বছরে দুটি ঈদ ছাড়া কেউ আলীর পাশে স্হায়ীভাবে দাড়ায়নি। গত বিশ বছর যাবৎ আলী লাঠিতে ভর করেই হাটছে, উচুনিচু পথে নিজের ভারসাম্য হারিয়ে পড়ে গেলেও ওই লাঠিই তার ভরসা। একটা হুইল চেয়ার নিয়েও আলীর পাশে কেউ সহযোগিতার হাত বাড়ায়নি। আলী দেশের সরকার ও বিত্তবানদের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে, কেউ যেন তার বৃদ্ধ মা সহ তার পরিবারের পাশে এসে দাড়ায়। আলীর মিনতি সুযোগ পেলে সে ভিক্ষাবৃত্তি ছেড়ে অন্য পেশায় নিজকে নিযুক্ত করবে।

মেহেন্দিগন্জ পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আলী হোসেনের স্বপ্ন সমাজের আরো দশজনের মতো তার মা কে নিয়ে সে বেচে থাকবে যতদিন আল্লাহ্ বাচিয়ে রাখবেন।।

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap