“ যখন রাত্রি নামে ”

< 1 min read


মো:মোস্তাফিজুর রহমান ইমন

যখন রাত্রি নামে
চাঁদ জোস্না ছড়ায়,
তারারা ঝিক-মিক করে
জোনাক জ্বল-জ্বল করে।

যখন রাত্রি নামে
ঝিঁঝিঁপোকা ঝিক-ঝিক ডাকে,
শেয়াল হুক্কাহু-হুক্কাুহু ডাকে,
ইঁদুর ছোটাছুটি করে।

যখন রাত্রি নামে
মানুষের রঙ বদলায়,
ধর্ষনের তৃষ্ণা পায়
শিশু হোক বা বৃদ্ধায়।

যখন রাত্রি নামে
ডুমুরের ফুল ফোটে,
শিশুরা কেঁদে ওঠে
মাতৃ দুগ্ধের টানে।

যখন রাত্রি নামে
রাধা কৃষ্ণ নদীর পাড়ে,
গায়ে জোৎস্না মেখে
সুকতারা খোঁজে।

যখন রাত্রি নামে
মানুষ পশুর রূপ নেয়,
রক্তের নেশা হয়
সৃষ্টিকর্তাকে পায়না ভয়।

যখন রাত্রি নামে
বিড়ালের চোখ রঙিন হয়,
ছোটরা ভয় পায়
চোখ ভাসে কান্নায়।

যখন রাত্রি নামে
সমস্ত আঁধারে ঢাকে,
মশাগুলো বন বন করে
হুল ফোটানোর সুযোগ খোঁজে।

( ২৮-০৯-২০১৯
কোটচাঁদপুর ঝিনাইদহ )

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap