যশোরে টেন্ডার ছিনতাই

< 1 min read

নিজস্ব প্রতিনিধি,যশোরঃ

যশোরের কেশবপুরে উপজেলা পরিষদে পুরোনো আদালত ভবনের নিলামপ্রক্রিয়ায় অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলা চেয়ারম্যানের ছেলেকে কাজ পাইয়ে দিতে অংশগ্রহণকারী এক ঠিকাদারের দরপত্র ছিনতাই হয়েছে। তিনি প্রতিকার পেতে যশোরের জেলা প্রশাসক, দুদকসহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ করেছেন।
সূত্রে জানা গেছে, কেশবপুর উপজেলায় ১৯৮৪ সালে নির্মিত আদালত ভবনটি পরিত্যক্ত হয়েছে বেশ কিছুদিন। ওই ভবনের মালামাল নেওয়ার জন্য ১ লাখ ৩৭ হাজার ২৮০ টাকা সর্বনিম্ন দর নির্ধারণ করে বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়। ২ অক্টোবর পর্যন্ত ৪৭ জন শিডিউল কেনেন। ৩ অক্টোবর দরপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন ছিল। ওই দিন কেশবপুরের উপজেলা চেয়ারম্যান কাজী রফিকুল ইসলামের ছেলে মোজাহিদুল ইসলামসহ চারজন দরপত্র জমা দেন। মোজাহিদুলের লোকজন তরিকুল ইসলাম নামের এক ব্যক্তির দরপত্র ছিনতাই করে নিয়ে গেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

সর্বনিম্ন দরের বিপরীতে মোজাহিদুল ১ লাখ ৩৯ হাজার টাকার দরপত্র জমা দিয়েছিলেন। আর তরিকুল দিয়েছিলেন ১ লাখ ৬০ হাজার টাকার দরপত্র। তরিকুল বলেন, সর্বোচ্চ দরদাতা হিসেবে তাঁর কাজটি পাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু বাক্স থেকে তাঁর প্রয়োজনীয় কাগজ ও টাকা ছিনতাই করে নিয়ে যায় মোজাহিদুলের লোকজন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap