শৈলকুপায় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উপর হামলার মামলায় ৭ আসামির আত্মসমর্পণ

< 1 min read

এম বুরহান উদ্দীন -শৈলকুপা, ঝিনাইদহ প্রতিনিধি:

  • Save

ঝিনাইদহের শৈলকুপার নতুনভুক্ত মালিথিয়া গ্রামের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ব্যবসায়ী সুজনের উপর মাগুরার শ্রীপুর গয়েশপুর ইউনিয়নের চাকদা গ্রামের জেনারেল ও রুবেলের নেতৃত্বে মিতুল, ইমারুল সহ বেশ কয়েকজন জমি বিরোধের জের ধরে হামলা করে। এ ঘটনায় ওইদিনই শৈলকুপা থানায় ৭ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের হয়। যার মামলা নং- ০৩, তাং-৪-৫-২০ ইং।

উক্ত মামলা প্রত্যাহার ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধের হুমকি দিয়ে আসামীরা মঙ্গলবার(৫ মে) সকালে গয়েশপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আব্দুল হালিমের কর্মী সমর্থকেরা দ্বিতীয় দফায় হামলা চালিয়ে ভাংচুর চালায়।

মুহুর্তে খবর ছড়িয়ে পড়লে লাঙ্গলবাঁধ বাজারকেন্দ্রিক আশপাশের কয়েক গ্রামের লোকজন দেশীয় ঢাল-সড়কির মহড়া দেয়।। এক পর্যায়ে শৈলকুপা ও শ্রীপুর থানা থেকে প্রায় অর্ধশত পুলিশ বিক্ষুব্ধদের ছত্রভঙ্গ করে বাজার নিয়ন্ত্রণে নিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে।

এ হামলার ঘটনায় আসামীরা থানায় এসে আত্মসমর্পণ করেছে। আসামীরা হলো- মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার ছাবিনগর গ্রামের মজিদ বিশ্বাসের ছেলে রুবেল বিশ্বাস (৩৫), মিটুল বিশ্বাস (২৫), টুলু মিয়ার ছেলে জিনারুল মিয়া (২৫), জোকি গ্রামের নবুয়াত শেখের ছেলে পিউলি শেখ ও শৈলকুপার নতুনভুক্ত মালিথিয়া গ্রামের মৃত আ: হালিম বিশ্বাসের ছেলে শহিদুল ইসলাম (৫০), মৃত হালিম বিশ্বাসের ছেলে ওহাব বিশ্বাস (৫০)।

এ বিষয়ে, শৈলকুপা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বজলুর রহমান জানান, আসামীরা থানায় এসে স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পণ করেছে। তাদেরকে আদালতে প্রেরণের প্রস্তুতি চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap