১৫০ পরিবারে ঈদ উপহার হিসেবে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করলো করোনা ভলান্টিয়ার্স নেটওয়ার্ক

2 minutes

অফিস ডেস্ক আরসান কাফি সাজু:

করোনা ভলান্টিয়ার্স নেটওয়ার্ক ঢাকায় মোহাম্মদপুর, মিরপুর, উত্তরা এবং মহাখালিতে ঈদ উপলক্ষে ১৫০ টি পরিবারের মধ্যে জরুরী খাদ্য সামগ্রী বিতরন করেছে। ৪ জন সদস্যের একটি পরিবারের ২ সপ্তাহের চাহিদা মেটানোর উপযোগী নিত্যপণ্যের প্যাকেটে বিলি করা হয়। প্রতিটি প্যাকেটে ছিলো ১২ কেজি চাল, ২ কেজি ডাল, ১ প্যাকেট লবণ, ১ কেজি চিনি, ২ লিটার তেল, ৪ কেজি আলু, ২ কেজি পেঁয়াজ, ১ প্যাকেট গুড়া দুধ, ২ প্যাকেট সেমাই , ১টি সাবান এবং ১ প্যাকেট (৫০০ গ্রাম) ডিটারজেন্ট।

  • Save

খাদ্য ও নিত্যপণ্য সামগ্রী বিতরণের কাজে বিনা পারিশ্রমিকে সহায়তা করেছেন ঢাকা শহরের বিভিন্ন অঞ্চলের করোনা ভলান্টিয়ার্স নেটওয়ার্কের স্বেচ্ছাসেবীগণ। ২২-০৫-২০২০ তারিখ সকাল বেলা মিরপুর ১১ মুসলিম বাজার থেকে প্রয়োজনীয় সামগ্রী কেনা হয়। তারপর সারারাত ধরে মিরপুরে ৭ নম্বর সেক্টরে করোনা ভলান্টিয়ার্স নেটওয়ার্কের মিরপুর টিমের সহায়তায় প্যাকেজিং এর কাজ সম্পন্ন করা হয়।

  • Save

সার্বিক তত্ত্বাবধায়নে ছিলেন করোনা ভলান্টিয়ার্স নেটওয়ার্কের সমন্বয়ক আলিমুল কবীর এবং তাকে বিভিন্নভাবে সহায়তা করেছেন সহ-সমন্বয়ক সামসুজ্জামান রিটন। উপস্থিত ছিলেন করোনা ভলান্টিয়ার্স নেটওয়ার্কের সমন্বয়ক টিমের সদস্য তৌফিক হাসান। অক্লান্ত পরিশ্রম করে মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য সকল সেচ্ছাসেবীকে আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানান সহ সমন্বয়ক সামসুজ্জামান রিটন.
এছাড়া ঢাকার বাইরে নেত্রকোনা এবং কিশোরগঞ্জেও ঈদ উপলক্ষে জরুরী খাদ্য সামগ্রী বিতরণের কাজ চলছে বলে জানান সমন্বয়ক টিমের সদস্য তৌফিক হাসান।

  • Save

করোনা ভলান্টিয়ার্স নেটওয়ার্কের সমন্বয়ক আলিমুল কবীর বলেন, এবারের ঈদ একেবারেই একটা ভিন্ন পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে উদযাপিত হতে যাচ্ছে। নিম্ন আয়ের মানুষ করোনা পরিস্থিতির কারণে চরম সংকটে আছেন। আমরা সমাজের বিবেকবান-সংবেদনশীল মানুষের সহায়তায় তাদের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছি। অনেকেই দান করেছেন যাকাত। কেউ কেউ ঈদে নতুন পোষাক না কিনে সেই টাকা দান করেছেন বিপন্ন মানুষজনের সহায়তায়। ঈদের দিন এবং পরবর্তী কিছুদিন অন্তত: মানুষের ঘরে যেন নূন্যতম খাবারটুকু থাকে সেই উদ্দেশ্যেই এইসব উপহার সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

  • Save

তিনি আরো জানান, পুরো রমজান মাস জুড়েই করোনা ভলান্টিয়ার্স নেটওয়ার্ক ইফতার এবং খাদ্য সামগ্রী বিরতনের মাধ্যমে বিপন্ন মানুষজনের পাশে থাকার চেষ্টা করেছে। জনাব আলিমুল কবীর জানান প্রতিদিনই সাহায্যকামী মানুষের সংখ্যা বাড়ছে। এরকম পরিস্থিতিতে যাদের সামর্থ্য আছে তারা অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ালে হয়তো আরো কিছু মানুষের মুখে হাসি ফোটানো যাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »
Share via
Copy link
Powered by Social Snap