করোনার উৎস খুঁজতে মার্কিনগোয়েন্দাদের ৯০ দিন সময় দিলেন বাইডেন

0
141
international news in bangla

করোনা ভাইরাসের উৎস কোথায় তা তদন্ত করে দেখার জন্য মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলোকে নির্দেশ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। এক বিবৃতিতে বাইডেন গোয়েন্দা সংস্থাগুলোকে তাদের চেষ্টা দ্বিগুণ করার জন্য বলছেন এবং বিষয়টি নিয়ে তার কাছে ৯০ দিনের মধ্যে রিপোর্ট জমা দিতে বলেছেন। খবর বিবিসির।

২০১৯ সালের শেষে দিকে চীনের উহানে কোভিড-১৯ প্রথম শনাক্ত হয়েছিল। প্রাণঘাতী এই ভাইরাস ইতোমধ্যেই ৩৫ লাখের বেশি মানুষের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন দেশে করোনার কারণে বিপর্যয় নেমে এসেছে।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ার পর তা বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ে। চীনে করোনায় প্রথম রোগীর মৃত্যু হয় ২০২০ সালের ৯ জানুয়ারি। ওই বছরের ১৩ জানুয়ারি চীনের বাইরে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় থাইল্যান্ডে। এখন পর্যন্ত বিশ্বের ২২০টি দেশ ও অঞ্চলে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের বিস্তার ঘটেছে।

এর আগে করোনাভাইরাসের উৎপত্তির জন্য চীনের একটি সামুদ্রিক বাজারের কথা বলা হয়েছিল। বিজ্ঞানীরা বলছেন, এই ভাইরাস প্রাণী থেকে মানুষের দেহে সংক্রমিত হয়েছে।

তবে চীন এর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে পাল্টা বলেছে, মার্কিন গবেষণাগার থেকে করোনাভাইরাস ছড়িয়েছে। হোয়াইট হাউসের দেয়া এক বিবৃতিতে বাইডেন বলেন, দায়িত্ব গ্রহণের পর করোনাভাইরাসের উৎস সম্পর্কে একটি রিপোর্ট দিতে বলেছেন তিনি।

কোন প্রাণীর কাছ থেকে এই ভাইরাস মানবদেহে এসেছে নাকি গবেষণাগারে দুর্ঘটনা থেকে এর উৎপত্তি হয়েছে তা জানতে চান বাইডেন। এই রিপোর্ট পাওয়ার পর প্রেসিডেন্ট বাইডেন আরও বিস্তারিত রিপোর্ট চেয়েছেন।

বাইডেন বলেন, এখন পর্যন্ত মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলো দুটো সম্ভাব্য উৎসের কথা বলেছে। কিন্তু তারা এ বিষয়ে কোন চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে উপনীত হতে পারেননি।

তিনি বলেন, এ বিষয়ে একটি পূর্ণাঙ্গ, স্বচ্ছ এবং প্রমাণভিত্তিক আন্তর্জাতিক তদন্ত করা প্রয়োজন। চীন যেন তাদের সব ধরণের ডেটা এবং তথ্য দিয়ে সহায়তা করে সেজন্য যুক্তরাষ্ট্র তাদের সমমনা দেশগুলোর সাথে একত্রিত হয়ে চীনের উপর চাপ প্রয়োগ করবে বলে জানানো হয়েছে।

পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১৬ কোটি ৯০ লাখ ৭১ হাজার ১৮৭। এর মধ্যে মারা গেছে ৩৫ লাখ ১২ হাজার ২৩ জন। তবে ইতোমধ্যেই করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছে ১৫ কোটি ৭ লাখ ২ হাজার ৮৭৭ জন।

বিশ্বে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় সবার ওপরে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ৩ কোটি ৩৯ লাখ ৭১ হাজার ২০৭ জন। মৃত্যু হয়েছে ৬ লাখ ৬ হাজার ১৭৯ জনের। আর সুস্থ হয়েছেন ২ কোটি ৭৬ লাখ ৬২ হাজার ২৬৮ জন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here