কোটচাঁদপুরে গলায় ফাঁস দিয়ে নববধূর আত্মহত্যা

0
286

ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি:মো: রোকনুজ্জামান ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলার ২ নং দোড়া ইউনিয়নের মাঝের পাড়া গ্রামের মোঃ জিয়াউর রহমানের মেয়ে জেসমিন খাতুন (১৮) নামের এক নববধু ঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

থানা ও পারিবারিক সূত্রে জানাযায়, গত ১৬ নভেম্বর জেসমিন খাতুন (১৮) কোটচাঁদপুর উপজেলার বলুহর ইউনিয়নের ফুলবাড়ি গ্রামের আজিজুল ইসলামের ছেলে মোঃ তরিকুল ইসলাম (২৫) এর সাথে বিবাহ হয়। গত ২৫ ডিসেম্বর স্বামী তরিকুল ইসলামের সাথে নিজ বাবার বাড়িতে বেড়াতে আসেন। ২৬ডিসেম্বর রাত্র আনুমানিক ৯.০০ টার দিক রাত্রের খাবার খায়। রাত ১০.০০ টার দিকে জেসমিন এর স্বামী তরিকুল তার চাচাতো শ্যালক রাজনের বাড়িতে বেড়াতে যায়। রাত ১১.৩০ মিনিটের দিকে তরিকুল শশুর বাড়ি ফিরে এসে জেসমিন কে ডাকতে থাকে। ঘরের দরজা না খোলায় জেসমিনের বাবা ও মা এবং আত্মীয় স্বজনরা দরজা ভেঙ্গে ভিতরে ঢুকে দেখতে পাই নিজের ব্যাবহার করা ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে সিলিং ফ্যানের সাথে ঝুলে রয়েছে। আশপাশের লোকজন গলার ফাঁস কেটে নিচে নামিয়ে একটু হাঁটাহাটি করানোর পর জেসমিন মারা যায়।

কোটচাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মইনুদ্দিন আহমেদ বলেন,মৃত জেসমিনের লাস উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে এবং একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে মামলা নং- ৪৪।