গাজীপুরের কালিয়াকৈরে রাতের আঁধারে  তুরাগ নদী থেকে মাটি পাচারের হিড়িক। 

0
79

স্টাফ রিপোর্টার, মোঃ মোওাসিম সিকদার রাজীব : গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার ঐতিহ্যবাহী তুরাগ নদী থেকে ফের রাতের আধারে ফের বালু ও মাটি পাচার হচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলা প্রশাসনের তৎপরতায় কিছুদিন মাটি ও বালু পাচার বন্ধ ছিল। কিন্তু একটি অসাধু চক্র আবারো সক্রিয় হয়ে উঠেছে। নদীর পারে গভীর গর্ত করে বালু পাচারের ফলে বর্ষা মৌসুমে গতিপথের পরিবর্তন হওয়ার শংকা রয়েছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, উপজেলার চতল শোলাটি নামক  এলাকায় কাউসার হোসেন নামের এক ব্যক্তি নদীর পার থেকে গভীর গর্ত করে বালু ও মাটি উত্তোলন করে পাচার করছে রাতের আধারে। মকশ বিল ও তুরাগ নদের পাশ ঘেঁষে ওই এলাকার অতি গুরুত্বপূর্ণ সড়কটি ভাঙ্গনের হুমকিতে পড়েছে। স্থানীয় নদীর পাড়ের লোকজনের আশংকা  সামনের বর্ষা মৌসুমে দুই পাশের পানির চাপে রাস্তাটি ভেঙ্গে পড়বে। একদিকে তুরাগের প্রবাহমান পানি অপরদিকে মকশ বিলের পানির চাপে এমনিতেই রাস্তার কোনঠাসা অবস্থা। এ অবস্থায় রাস্তার পারে নদীতে এত বড় গর্ত রাস্তা ও নদীর জন্য হুমকি।

এ ব্যপারে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জনৈক এক ব্যক্তি বলেন, যারা নদীর মাটি কেটে নিচ্ছে তারা অনেক ক্ষমতাশালী। ক্ষতি হবে জেনেও আমরা কিছু বলতে পারিনা।

এ ব্যপারে কাউসার বলেন, আমি নদীর মাটি কাটি না মাটি কিনেছি সে গুলো নিয়ে বিক্রি করছি। 

মাটি  বিক্রেতা মিজান সাথে কথা বললে তিনি জানান নদীর পাড় কাটতে বারবার নিষেধ করা সত্ত্বেও অমান্য করে  নদীর পাড়ের মাটি কাটছে, এ বিষয়ে  কালিয়াকৈর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী হাফিজুল আমিন বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখে দ্রূত যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here