ঝিনাইদহে জমি নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ৩

0
16

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি : ঝিনাইদহ কোটচাঁদপুরে ফাজিলপুর গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে তিনজনকে এলোপাথাড়ি মেরে জখম করেছে প্রতিপক্ষরা।

রবিবার (১৩ ই আগস্ট) দুপুরে এলাঙ্গী ইউনিয়নের ফাজিলপুর গ্রামে এমন ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- মো. জোসনা বেগম (৪৮),তার ছেলে মোঃ সবুজ হোসেন (২৪) ও আর এক ছোট ছেলে সুজন (১২)। আহতরা কোটচাঁদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েছিল।

আহত সবুজ হোসেন জানান, ২৫ বছর আগে মোঃ ওহাব মন্ডল ও ইদ্রিস মন্ডল কাছ থেকে আমরা জমি কিনেছিলাম। কিন্তু ওই সময়ে রেজিস্ট্রি করে নেওয়া হয়েছিল না। আমাদের ক্রয় কৃত জমিতে আমরা বসতবাড়ি করে ২৫ বছর ধরে অবস্থান করছে। এখন জমি রেজিস্ট্রি করতে চাইলে বিভিন্ন হুমকি-ধামকি ও মারধর করে। বিগত অনেকবার এমন ঘটনা ঘটছে। ১৫ই আগস্ট সকালে জমি প্রসঙ্গে কথা বলতে গেলে ইদ্রিস মন্ডল এবং ওয়াব মন্ডল লাঠিসোটা ধারালো অস্ত্র নিয়ে আমাদের উপর হামলা করে। এতে করে আমার মা গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। সাথে সাথে আমি থানায় অভিযোগ করি।

এদিকে কোটচাঁদপুর মডেল থানার ওসির নির্দেশে গুড়পাড়া ক্যাম্পের ইন্সপেক্টর সাঈদ আল মামুন ধারালো অস্ত্রসহ একজনকে (ইদ্রিস মন্ডল) আটক করেন।

এলাকাবাসী মিডিয়াকে জানান, পুলিশ ধরে নিয়ে গেলেও কোর্ট থেকে জামিন পেয়ে তারা ক্ষান্ত হয়নি। এলাকা ক্ষমতাধর ব্যক্তিদের সাথে নিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আবারো তাদের বাড়িতে হামলা করে।

আহত জোসনা বেগম এর স্বামী মোঃ আতিয়ার মন্ডল মিডিয়াকে জানান, আমার প্রাপ্য জমি আমাকে ফেরত দেয় না উল্টো আমাকে হয়রানি ও জব্দ করার জন্য আমার তিন ভাইয়ের নামে ও আমার দুই ছেলের নামে কোর্টে মিথ্যা অভিযোগ করেন। আমি এই মিথ্যা অভিযোগ প্রত্যাহার চাচ্ছি যদি মিথ্যা অভিযোগ প্রত্যাহার না করা হলে আমি সংবাদ সম্মেলন করব।

কোটচাঁদপুর মডেল থানার ওসি মঈন উদ্দিন জানান, অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথে আমরা আসামি গ্রেপ্তার করে কোর্টে চালান করে দিই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here