দিনাজপুর জেলা আ:মী লীগের সা: সম্পাদক আজিজুল ইমামের পুত্রের ক্ষমতার দাপটে নি:স্ব বিধবা‘র পরিবার

0
140

মোঃ মোমিনুল ইসলাম দিনাজপুর প্রতিনিধি :উচ্চ আদালতের নিষেধজ্ঞা থাকা সত্বে কোটি টাকার সম্পদ অবৈধভাবে দখলের জন্যে অসহায় বিধবা এবং তার এতিম ২ সন্তানকে হত্যা করে লাশগুমের হুমকি প্রদান করছে নিজের ভাসুর আগা খাঁন এবং দিনাজপুর জেলা আ:মীলীগের সা: সম্পাদক আজিজুল ইমাম ওরফে খাটকু চৌধুরীর পুত্র মো: আজিজুল ইকবাল চৌধুরী।
৭ ফেব্রয়ারী সোমবার দিনাজপুর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে শহরের বালুবাড়ি মহল্লার নির্যাতিত অসহায় বিধবা নারী খন্দকার রুমানা ফেরদৌসীর আয়োজনে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এসময় তিনি লিখিত বক্তব্যে বলেন, আমার স্বামী মরহুম আজম খাঁনের মৃত্যুর পর ওয়ারিশন সুত্রে তার রেখে যাওয়া সকল স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তির মালিকানা তিনি এবং তার কন্যা আতিকা তাসনিম আরলিনরা (১৪) ও পুত্র মো: রামিম রাইয়ান খাঁন (১৩)‘র হওয়ার কথা থাকলেও সম্পত্তি নিয়ে চক্র্ান্ত শুরু করেন ভাসুর আাগা খাঁন ও আজিজুল ইকবাল চৌধুরী।
২০২০ সালে মরহুম আজম খাঁনের মৃত্যুর পর তার করা সম্পত্তি দিনাজপুর শহরের প্রানকেন্দ্র নিমতলাস্থ খাঁন আবাসিক হোটেলের উপার্জিত অর্থের কোনো লাভ্যাংশের কোনো ভাগ আমাদের দেয়া হচ্ছে না।
এব্যাপারে খোজখবর নেয়া শুরু করলে আমার ভাসুর আগা খাঁন হোটেলের উপার্জিত অর্থের কোনো ভাগ আমাকে এবং আমার সন্তানদের দিতে অস্বীকার করে এবং খুন জখমের হুমকি প্রদান করে।
তখন বাধ্য হয়ে সম্পত্তি রক্ষনাবেক্ষণের জন্য বৈধ মালিক হিসেবে সন্তানদ্বয় ছোট থাকায় আমি মরহুম আজম খানের স্ত্রী রুমানা ফেরদৌসী বাদি হয়ে দিনাজপুর আদালতে মিস সাকশেসন মোকদ্দমা দায়রা ৭/২০২০ এবং গার্ডিয়ানশিপ মোকদ্দমা ৭৬/২০২০ এবং থানায় একটি জিডি দায়ের করি যার নং ১৪৪ তাং২/২/২০২১। থানার তদন্তকারী কর্মকর্তা জিডির সত্যতা পাওয়ায় বিজ্ঞা আদালতে প্রতিকিউশন মামলা নং ৫৭ তাং ২২/০৪/২০২১ইং ধারা ৫০৬(২) দ:বি: দাখিল করেন। এছাড়াও আমার স্বামী তাহার জীবদ্দশায় উত্তরা ব্যাংক লি: মালদহ্পট্টি শাখা হতে জমি মর্টগেজ দিয়ে ্ঋন নেন,বণিত ঋনের টাকা তিনি সময়মত পরিশোধ করতে না পারায় ব্যাংক আমার স্বামীর বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালতে মামলা দায়ের করে। মামলা চলমান থাকাকালেই আমার স্বামী অজম খাঁন মৃত্যুবরণ করেন,ব্যাংক তখন মর্টগেজকৃত জমি ক্রোকের পদক্ষেপ নিলে আমি সম্পত্তি রক্ষার জন্য বিজ্ঞ অর্থঋন আদালতের মামলা নং ৪১/২০১৭‘র বিরুদ্ধে মহামান্য হাইকোট ডিভিশন আদারতে পিটিশন মামলা নং ২৯৫/২০২২ দায়ের করি। দায়েরকৃত পিটিশনের প্রেক্ষিতে মহামান্য হাইকোর্ট ডিভিশনের বিচারপতি জাফর আহমেদ ও কাজী জিনাত হক‘এর বেঞ্চ গত ৩০/০১/২০২২ তারিখে মর্টগেজকৃত জমির উপর ৬ মাসের নিষেধজ্ঞা জারির আদেশ প্রদান করেন।
হাইকোর্টের আদেশের লইয়ার্স সার্টিফিকেট পাওয়ার পর আমি ও আমার সন্তানেরা সদরের শেখপুরা মৌজার রাজবাটি ভুইঁপাড়া এলাকাস্থ আমার মরহুম স্বামীর নামীয় “আজম খাঁন অটোমেটিক রাইস মিল“র গেটের সামনে উচ্চ আদালতের আদেশসহ মর্টগেজকৃত জমির তফশীল উল্লেখিত ব্যানার স্থাপন করতে গেলে আগা খাঁন ও ইকবাল চৌধুরীসহ অন্যান্য সন্ত্রাসীরা আদারতের খানা জোরপূর্বক সাইনর্বোডটি ভেঙ্গে দেয়। আমরা বাধা দিতে গেলে তারা আমাকে এবং সন্তানদেরকে হত্যা করে লাশগুম করা হুমকি প্রদান করে। তাদের এমন আচরণের বিষয়ে আমি থানায় আরো একটি জিডি করেছি যার নং ৫২ তাং ০১/০২/২২ইং। থানায় জিডি করার পরেও তারা অব্যাহত ভাবে নানান রকমের হুমকি ধমকিসহ আমার স্বামীর নামীয় আজম খাঁন অটোমেটিক রাইস মিলে অবৈধভাবে প্রবেশ করে কোটি টাকা মুল্যের মিলের মালামাল ও যন্ত্রাংশ খুলে নিয়ে যাওয়া শুরু করে। খবর পেয়ে আমরা বাধা দিতে গেলে তারা আমাদেরকে মিলে প্রবেশ করতে দেয়নি বরঞ্চ গেট বন্ধ রেখে মুল্যবান যন্ত্রাংশ খুলে নিয়ে যাচ্ছে। তাদের একটাই উদ্দ্যোশ্য আমাদের মেরে ফেলে হলেও সম্পত্তি তারা নেবেই। ক্ষমতার দাপটের কাছে আমরা তাদের বিরুদ্ধে কোনো কিছুই করতে পারছিনা।
সংবাদ সম্মেলন রুমানা ফেরদৌসী বলেন,দিনাজপুর জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আজিজুল ইমাম খাটক্কু চৌধুরীর ছেলে আজিজুল ইকবালের ক্ষমতার প্রভাবেই আমরা নি:স্ব হতে চলেছি। আমাদের জীবন ও সম্পদ রক্ষায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার কাছে সাহায্য চাই। এসময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কন্যা-পুত্র এবং বোন খন্দকার নাসিমা আখতার দিনাজপুর প্রতিনিধির সর্বপ্রথম সংবাদ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here