বন কর্মকর্তাদের জীবনের ঝুঁকি নিয়েই উদ্ধার করতে হয় বনভূমি।

0
110
bitcoin merchant services

মোঃ মোওাসিম সিকদার রাজীব স্টাফ রিপোর্টার।।বাংলাদেশের বেশির ভাগ সময় বন দখল করে থাকে বিত্তবান ও ক্ষমতাসীনেরা। অথবা নেপথ্যে থাকে কোন শক্তিশালী মহল। এদের উচ্ছেদ করতে যথাযথ লোক সংকট আর অস্ত্র, সরঞ্জামের সংকটে পরতে হয় বন কর্মকর্তাদের বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।


একাধিক সূত্রে জানা যায়, চন্দ্রা বিট কর্মকর্তা শরিফুর রহমান চৌধুরী যোগদানের পর থেকেই চন্দ্রা বিট এলাকায় উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত রেখেছেন। সোমবার সারাদিনই পূর্ব চান্দরা নামক এলাকায় বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোহাম্মদ ইউসুফ এর নির্দেশনায় বিট কর্মকর্তা শরিফুর রহমান চৌধুরীর নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে জবর দখল উচ্ছেদ করে সরকারি বনের জমি উদ্ধার করা হয় । এসময় বন বিভাগের লোকজন দবির সরকার, বাবুল সরকার ও দুলাল সরকারের বনের জমিতে গড়ে তোলা ঘরবাড়ি উচ্ছেদ করে দেয়।
এছাড়াও সামনে বোর্ড মিল এলাকায় একটি বড় ধরনের উচ্ছেদ অভিযান হওয়ার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত রয়েছে। বেশ কিছুদিন আগেও দখলদার দুপক্ষের মধ্যে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে গুলা গুলির ঘটনা ঘটে। এসব নিয়েও শঙ্কিত রয়েছে বন বিভাগের লোকজন। তবে এব্যাপারে চন্দ্রা বিট কর্মকর্তা শরিফুর রহমান চৌধুরী বলেন, আমাদের যা আছে, তাই নিয়ে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। আরো লোকজন, অস্ত্রশস্ত্র হলে আরো বড় বড় অভিযান পরিচালনা করতে পারি।