মেহেন্দিগঞ্জে ছাত্রনেতা হেমায়েত উদ্দীন খান হিমু ফুলেল ভালোবাসায় সিক্ত।

0
117

মেহেন্দিগঞ্জ প্রতিনিধি: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার ছাত্রলীগ সাবেক সাধারন সম্পাদক হেমায়েত উদ্দিন খান হিমু সোমবার মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলায় বড় শোডাউন করেছেন। এসময় নেতাকর্মীরা তাকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। লন্ডন থেকে দেশে ফেরার পর সোমবার তিনি মেহেন্দিগঞ্জ পৌছলে স্থানীয় আওয়ামীলীগের একটি অংশ তাকে বিপুলভাবে সংবর্ধিত করেছে।
বেলা সাড়ে ১২টায় নৌপথে মেহেন্দিগঞ্জ স্টীমারঘাটে পৌছার পর অপেক্ষামান হাজারো নেতাকর্মী তাকে ফুল দিয়ে বরন করেন। পরে তাদের নিয়ে পায়ে হেটে দুই কিলোমিটার দুরে উপজেলা হাসপাতালের সামনে মুক্তি যোদ্ধা স্মৃতি স্তম্ভো মাঠে সংবর্ধনা মঞ্চে পৌছান। ষ্টীমারঘাট থেকে সংবর্ধনা মঞ্চ পর্যন্ত কমপক্ষে ২০টি তোরন নির্মান করেন সমর্থকরা।অনুষ্ঠানে হাজারো দলীয় নেতাকর্মীসহ বিভিন্ন পেশাজীবী ও শ্রেণীপেশার মানুষের ফুলেল শুভেচ্ছা আর ভালোবাসায় সিক্ত হন তিনি। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে হিমু বলেন, তিনি প্রবাসে থাকলেও মেহেন্দিগঞ্জ-হিজলা উপজেলার সঙ্গে সর্বক্ষনিক যোগাযোগ ছিল তার। এখন নিয়মিত তিনি এলাকাতে যাতায়াত করে জনগণের পাশে থাকবেন।
তিনি আরো বলেন, আপনাদের ভালোবাসায় আমি সন্তুষ্ট, আমাকে আপনারা গ্রহণ করে নিয়েছেন, আমি আপনাদের পাশে থাকবো। আমার পরিবার এবং আমি সৎ ভাবে উপার্জন করে সৎভাবে জীবনযাপন করে যাচ্ছি, আমার বাবার কবরের পাশে আমার দাফন যেন হয়, সেই উছিয়ত করে যাবো পরিবারের কাছে। রাজনীতি করলে নেট ওয়ার্ক তৈরি হয়, এমপি মন্ত্রী হওয়া লাগেনা। কোন অন্যায়ের কাছে মাথা নত করা হবে না, মেহেন্দিগঞ্জ- হিজলার কোন আ’লীগকে আর নির্যাতিত হতে দিবো না। আমি সবিনয় অনুরোধ করছি হামলা -মামলা বন্ধ করুন। অন্যায়ভাবে কোন ব্যাক্তির উপর হামলা হলে আমি তার প্রতিবাদ করবো। এখানে আর কোন অন্যায় সিন্ডিকেট করা যাবে না, আমরা সকলে মিলে মেহেন্দিগঞ্জ-হিজলাকে এগিয়ে নিয়ে যাবো। আমাদের নেতৃত্বে রয়েছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা এবং অভিভাবক জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসনাত আবদুল্লাহ। সবাইকে সংগঠিত করে আমরা এগিয়ে যেতে চাই। তরুণ নেতৃত্বে সাদেক আব্দুল্লাহ, আশিক আব্দুল্লাহ , কান্তা আব্দুল্লাহ আমাদের অনুপ্রেরণা। আর কোন সন্ত্রাসীর স্থান মেহেন্দিগঞ্জে হবে না। এসময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দীন আহমেদ , উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক কাউন্সলর রফিকুল ইসলাম টেনু, কাউন্সিলর সোহেব হোসেন সোহরাব, কাউন্সিলর সাইদুর রহমান মনির, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি পারভেজ চান, সাধারণ সম্পাদক মোঃ রফিকুল ইসলাম রকিব, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক কাউন্সিলর আব্দুল মোতালেব জাহাঙ্গীর, সদস্য সচিব ফিরোজ গোল্দার, উপজেলা জাতীয় শ্রমিক লীগের যুগ্ম-আহবায়ক শাহে আলম বাঘা, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নীরব হোসেন বেপারী, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি শাখাওয়াত হোসেন রনি, সাধারণ সম্পাদক মোঃ সুমন হোসেন প্রমুখ। এ দিন হিমু তার মরহুম পিতার কবর জিয়ারত করেন।