রামগড় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মাদকাসক্ত ব‍্যাক্তির অতর্কিত হামলা ও ভাংচুর।

0
99

রামগড় প্রতিনিধিঃ খাগড়াছড়ির রামগড় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে শনিবার ভোর রাতে এক ব্যাক্তি হাসপাতালে প্রবেশ করে রোগী ও কর্তব্যরত নার্সদের উপর অশালীন ভাষায় কথা বার্তা ও চিৎকার চেঁচামেচি সহ নাইট গার্ডের উপর হামলার এই ঘটনা ঘটায় ।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, আজ (৩ জুলাই) শনিবার ভোর রাত ৩ টার সময় রামগড় হাসপাতালের নাইট গার্ড প্রনব দেব নাথ’কে মারধর করে রোগীর ওয়ার্ড এবং নার্সদের ডিউটি রুমের দরজায় লাথি মেরে ভিতরে প্রবেশ করে অশালীন ভাষায় কথা বার্তা ও চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করেন এক ব্যাক্তি। এবং নার্সদের মূখে থাকা মাস্ক ছিনিয়ে নিয়ে ছিঁড়ে ফেলে দেন। এর আগে মহিলা রোগীদের ওয়ার্ডে প্রবেশ করে সকল রোগীর মূখের মাস্ক গুলো নিয়ে ছিঁড়ে ফেলেন। এবং অনেক চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করে,যার কারণে গভীর রাতে সকল রোগী সহ সাথে থাকা স্বজনদের মাঝে আতংক সৃষ্টি হয়। পরে কর্বত্যরত নার্স সহ রোগী কিছু স্বজনরা তাকে কোনো রকম বুঝিয়ে শান্ত করে ওয়ার্ডের বাহিরে পাঠিয়ে দেন। হাসপাতালে তান্ডব চালানো ওই ব্যাক্তির নাম মো.আলী সে রামগড় পৌরসভা ৬ নং ওয়ার্ড চৌধুরী পাড়া গ্রামের বাসিন্দা এবং সে খাগড়াছড়ি জেলার লক্ষীছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জুনিয়র মেকানিক হিসেবে কর্মরত আছেন বলে জানান রামগড় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

রাতে ডিউটিতে থাকা উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার ডাক্তার মো.সাইফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, শুক্রবার রাত সাড়ে ১০টার সময় ওই ব্যাক্তি হাসপাতালের জরুরি বিভাগে এসে বলেন তাঁর পায়ে প্রচন্ড ব্যথা করতেছে। তখন ওই ব্যাক্তি খুবই মাদকাসক্ত ছিলেন, পরে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে পাঠিয়ে দেওয়া হয়। এরপর গভীর রাত তিন টার সময় ওই ব্যাক্তি হাসপাতালে এসে নাইট গার্ড প্রনবকে মেরে হাতে জখম করে ফেলেন, এছাড়াও রোগীদের ওয়ার্ডে গিয়ে তাঁদের সকলের মাস্ক গুলো নিয়ে ছিঁড়ে ফেলেন ও অশালীন ভাষায় কথা বার্তা বলে চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করেন।

এবিষয়ে জানতে চাইলে, রামগড় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প.প. কর্মকর্তা ডাঃ প্রতীক সেন বলেন, এই ঘটনাটি আমি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানিয়েছি। যেহেতু অভিযুক্ত ব্যক্তি লক্ষীছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জুনিয়র মেকানিক হিসেবে কর্মরর্ত আছে, তাই কতৃপক্ষ লিখিত ভাবে অভিযোগটি দেওয়ার জন্য বলেছেন। ইতিমধ্যে লিখিত অভিযোগটি পাঠানোর প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here