রায়পুরে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের
ব্যতিক্রম উদ্যোগ

0
99

মাঈন উদ্দিন, লক্ষিপুর প্রতিনিধি : রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স (সরকারি হাসপাতাল) এ মাতৃদুগ্ধ সেবন কক্ষ “স্নেহের পরশ” এবং মহিলাদের নামায কক্ষ “আহ্বান” এর শুভ উদ্ভোধন করা হয়।এসময় উপজেলা নির্বাহি অফিসার সাবরিন চৌধুরী বলেন। সরকারি হাসপাতালে প্রতিদিন অসংখ্য সেবাপ্রার্থী এসে থাকে, যাদের একাংশ হচ্ছে অসহায় মা ও শিশু। অসহায় ‘মা’ ও ‘শিশু’ হাসপাতালে এসে অনেক মায়েরাই বাচ্চাকে খাওয়ানোর সুনির্দিষ্ট জায়গা খুঁজে পান না। কখনো সিঁড়িতে, কখনো বারান্দায়, কখনো হাসপাতালের বাইরে রাস্তায়…দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে কখনো বা আধাবসা অবস্থাতেই শিশুকে দুধ খাইয়ে থাকেন। কোন একদিন হাসপাতাল পরিদর্শনকালে বিষয়টি নজরে আসায় পরবর্তীতে পরিকল্পনা করা হয় সরকারি হাসপাতালে একটি সুসজ্জিত “মাতৃদুগ্ধ সেবন কক্ষ নির্মাণের অসহায় মা ও শিশুর জন্য। অবশেষে করোনাকালীন অসহায় মায়েদের মুখে হাসি ফোটাঁতে এবং মা ও শিশুর স্বাস্থ্যগত দিক বিবেচনা করেই উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিস এবং উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার সার্বিক সহযোগিতায় বাস্তবিক অর্থেই সজ্জিত হলো কাঙ্খিত মাতৃদুগ্ধ সেবন কক্ষ “স্নেহের পরশ”।




পাশাপাশি হাসপাতালে মহিলাদের নামায আদায়ের সুবিধার্থে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার অনুরোধে হাসপাতালের দোতলায় নির্মাণ করা হলো মহিলাদের নামায কক্ষ “আহ্বান”।



মাতৃদুগ্ধ সেবন কক্ষ “স্নেহের পরশ” এবং মহিলাদের নামায কক্ষ “আহ্বান” এর শুভ উদ্বোধন করেন লক্ষ্মীপুর জেলার মাননীয় জেলা প্রশাসক জনাব মো: আনোয়ার হোছাইন আকন্দ স্যার। পরিকল্পনা এবং বাস্তবায়নে ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব সাবরীন চৌধুরী, রায়পুর।এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সম্মানিত সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল গাফ্ফার, রায়পুর পৌরসভার সম্মানিত মেয়র জনাব গিয়াস উদ্দিন রুবেল ভাট, সহকারী কমিশনার (ভূমি) জনাব আখতার জাহান সাথী, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ জাকির হোসেনসহ হাসপাতালের সকল ডাক্তারবৃন্দ, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জনাব এডভোকেট মারুফ বিন জাকারিয়া প্রমুখ।