সরকারি গাছ কাটার সংবাদের জেরে সাংবাদিকের উপর হামলা।

0
166

জামালপুর সদর উপজেলা সরকারি রাস্তার গাছ কর্তন করা হয়েছে।

উপজেলার ১৩ নং মেষ্টা ইউনিয়নে আড়ংহাটি গ্রামের সরকারি রাস্তার ১০টি গাছ কাটা হয়।

ঐ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রোকন মিয়া।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে গাছ কাটার ছবি তুলেন দৈনিক আমাদের সংবাদ পত্রিকার জামালপুর জেলা প্রতিনিধ মোঃ ফাহাদ হাসান।

ছবি তোলা ও নির্বাহী অফিসারকে অবগত করার কারণে সাংবাদিকের উপর ক্ষিপ্ত হয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং হামলা চালিয়ে মোবাইল কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও তার সহকর্মীরা।

এই ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন জামালপুর জেলা শাখার আহবায়ক কমিটির নেত্রী বিন্দুরা ও সাধারণ সদস্যরা।\

রবিবার (৫নভেম্বর) ১.৩০মিনিটের সময় ঘটনাটি ঘটে সদর উপজেলা মেষ্টা ইউনিয়নের আরং হাটি গ্রামের রাস্তায়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকাবাসীর একাধিক লোকের কাছ থেকে জানা যায়, সাংবাদিকের উপর হামলাকারি রোকন মিয়া তিনি একজন ভূমি খেকো।

রোকন মিয়া ও তার সহকর্মীরা গংরা অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে বলেন এ রাস্তাটি আমাদের নিজস্ব সম্পত্তির উপরে আরো বলেন প্রয়োজন হলে জামালপুর জেলা প্রশাসকের ওপর মামলা দায়ের করবেন রোকন মিয়া গংরা। এ সময় স্থানীয় কয়েকজন লোকজন এসে সাংবাদিক ফাহাদ হাসানকে রক্ষা করেন।

এ প্রসঙ্গে দৈনিক আমাদের সংবাদ পত্রিকার জামালপুর জেলা প্রতিনিধি ফাহাদ হাসান বলেন,আমি খবর পেয়ে এখানে যাই আর ছবি তুলি।এরপর তাদের কাছে সরকারি রাস্তার গাছ কাটার বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন এবং আমার মোবাইল ফোনটি কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন।

স্থানীয়দের দাবি অপরাধীকে দ্রুত আইনের আওতায় আনার জন্য ঊর্ধ্বতম কর্মকর্তাকে দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।

এ ব্যাপারে জামালপুর সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার(ইউএনও) লিটুস লরেন্স চিরান বলেন,ওই ব্যক্তি সরকারি রাস্তার গাছ কেটে থাকলে আগামীকাল ঘটনাস্থলে ভূমি অফিসারকে পাঠিয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।