হরিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রধান সহকারী কাম হিসাব রক্ষকের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ

0
172

সাকিব আহমেদ, হরিরামপুর (মানিকগঞ্জ):মানিকগঞ্জ জেলার হরিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রধান সহকারী কাম হিসাবরক্ষক হারুন অর রশিদের বিরুদ্ধে অর্থ আত্মসাৎ সহ হাসপাতালের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র চুরির অভিযোগ উঠেছে। গত ১০’ই জুলাই ও ৮ জুলাই হরিরামপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বরাবর লিখিত অভিযোগটি করেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. ইসরাত জাহান।

অভিযোগপত্রে তিনি উল্লেখ করেন, ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান মেসার্স সাহিদ এন্টারপ্রাইজের প্যাডের কপি জালিয়াতি করে ও সাহিদ এন্টারপ্রাইজের স্বত্ত্বাধিকারী মোঃ মহিদুর রহমান এবং আমার স্বাক্ষর জালিয়াতি করে অনেকগুলো বিলের টাকা উত্তোলন করে আত্মসাৎ করেছেন হারুন। শুধু তাই নয়, ওই বিলের অফিস কপিও চুরি করেছেন হারুন।
এছাড়াও সার্ভিস বুকসহ দুটি রেজিষ্ট্রার খাতা হিসাবরক্ষণ অফিস হতে চুরি করেন তিনি।


অভিযোগপত্রে আরো উল্লেখ রয়েছে , হারুন অর রশিদের মূল পদ হলো কুক/মশালচী। তার পদের আইডি নং ৫৪১৪১। কিন্তু তিনি হিসাবরক্ষক অফিসের সাথে যোগসাজোসে নিয়মিত অফিস সহকারীর বেতন উত্তোলন করেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ ইসরাত জাহান জানান, “আমার অফিসে বেশ কিছু অনিয়ম ও দুর্নীতির প্রমান পেয়েছি এবং আমার অফিস থেকে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র এবং রেজিষ্ট্রোর খাতা চুরি করেন আমার অফিসের প্রধান সহকারী কাম হিসাবরক্ষক হারুন অর রশিদ। এই ব্যাপারে গত ১০ জুলাই হরিরামপুর থানায় চুরির অভিযোগ করি।

এ ব্যাপারে প্রধান সহকারী কাম হিসাবরক্ষক হারুন অর রশিদ মুঠোফোনে জানান, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন অভিযোগ করেছেন। আমার নথিপত্র আমার কাছে আছে, এগুলো চুরি করার কি আছে।

এ ব্যাপারে হরিরামপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ মিজানুর ইসলাম বলেন, হাসপাতালের হিসাব রক্ষক হারুনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির বিষয়ে অভিযোগ পেয়েছি। দুর্নীতি সংক্রান্ত অভিযোগ হওয়ায় জিডি নথিভুক্ত করে দুদকে তদন্তের জন্য পাঠিয়েছি বলে জানান তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here