হাই স্পিডে গাড়ি চালনায় প্রাণ দিতে হলো আহসান হাবিব নামে এক যুবককে।

0
49

মো:রোমান আকন্দ স্টাফ রিপোর্টার, গাইবান্ধা।ঈদ মানে আনন্দ, ঈদ মানে খুশি। তাইতো ঈদের আনন্দ আরো একটু ঘন করার জন্য প্রতিনিয়ত মানুষ কোন না কোন পদ্ধতি অবলম্বন করছে। ঈদের আনন্দকে উপভোগ করার জন্য প্রতিটি মানুষ প্রতিনিয়ত মরিয়া হয়ে ওঠে। এতে করে ঘটছে প্রতিনিয়ত বিভিন্ন রকমের দুর্ঘটনা।

তেমনি একটি দুর্ঘটনা ঘটে গাইবান্ধা সদর উপজেলায়।গাইবান্ধা সদর উপজেলার দাঁড়িয়াপুরে। দারিয়াপুরে হাই স্পিডে মটরগাড়ি চালানোর কারনে গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মোঃআহসান হাবীব (২৭) নামে এক মেধাবী শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়।

তথ্য সংগ্রহ করলে স্থানীয়রা জানায় মোঃআহসান হাবীব গাইবান্ধা সদর উপজেলার গীদারী ইউনিয়নের কালির বাজার এলাকার পল্লী চিকিৎসক মোঃ আনজু মিয়ার ছেলে। সে বাড়ি থেকে দারিয়াপুর হয়ে গাইবান্ধার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছিল। কিন্তু তার গাড়ি চালানো ছিল একেবারেই বেপরোয়া। হাই স্পিডে গাড়ি চালানোর কারনে গাড়ী গতিপথ হারিয়ে গিয়ে দারিয়াপুর পোক্তর মেকানিক্সের দোকানের সামনে এক মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে।
ঘটনাস্থল থেকে স্থানীয়রা আহসান হাবিবকে উদ্ধার করে গাইবান্ধা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসকরা সেই মুহূর্তে আহসান হাবীবকে মৃত্যু ঘোষনা করে এরই মধ্যে দিয়ে তার জীবনের অবসান ঘটে। এবং তার মরাদেহ অ্যাম্বুলেন্সে করে বাড়িতে নিয়ে আসা হয়।

এমন একটি খুশির দিনে বেদনাবিধুর ঘটনা ও ছেলের অকাল মৃত্যুতে তার পরিবারে নেমে আসে দুঃখের কালো ছায়া। কোন কিছুতেই যেন মেনে নিতে পারছেনা ছেলের অকাল মৃত্যুর ঘটনা। দুঃখ ও কষ্টে যেনো ভারাক্রান্ত হয়ে পড়েছে তাদের পরিবার।

তাইতো এলাকাবাসীর আহব্বান ঈদ শুধু মানুষের মাঝেআনন্দের বার্তা নিয়ে আসবে তা নয় আনন্দের পাশাপাশি নিয়ে আসতে পারে দুঃখের বার্তা। তাইতো সাবধানতা অবলম্বন করে ঈদ উদযাপন করতে হবে। নয়তোবা আনন্দের পরিবর্তে পরিবারে নেমে আসবে দুঃখের ছায়া।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here